রবিবার, জুন 16, 2024

ব্রি উদ্ভাবিত ধানের ৩ নতুন জাত: শতকে ১ মণ ফলন

Must read

- Advertisement -

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের রাইস ফার্মিং সিস্টেম বিভাগের উদ্যোগে ব্রি উদ্ভাবিত নতুন জাতের ধান ব্রি ধান৮৯, ৯২ এবং বঙ্গবন্ধু ধান১০০ এর ফসল কাটা ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসব ধান চাষে প্রতি শতকে ১ মণ করে ফলন হয়েছে। বেশি ফলন পেয়ে খুশি কৃষক। 

সোমবার (১ মে) ফসল কাটা ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়।

গাজীপুর কালীগঞ্জ উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নে এই তিন জাতের নতুন ধান চাষ করেন কৃষকেরা। তারা ৩৩ শতকে ফলন পেয়েছেন ৩৩ মণ। অর্থাৎ শতকে এক মন ফলন হয়েছে।

ব্রির পরিচালক (প্রশাসন) ড. মো. আব্দুল লতিফ বলেন, ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট থেকে উদ্ভাবিত নতুন জাতগুলো ফলন আগের জনপ্রিয় জাত ব্রি ধান২৮ ও ২৯ এর তুলনায় অনেক বেশি। এগুলো যদি ভালো পরিচর্যা করা যায় তাহলে আরও বেশি ফলন পাওয়া সম্ভব। সুতরাং এখন পুরনো জাতগুলো বাদ দিয়ে নতুন জাতের ধান ব্রি ধান৮৯, ব্রি ধান৯২ এবং বঙ্গবন্ধু ধান১০০ চাষ করতে হবে।

প্রবাসী কৃষক আলতাফ হোসেন জানান, আগে বিদেশ ছিলাম কৃষি কাজ করতাম না। কৃষি কাজ অলাভজনক ভাবতাম কিন্তু ব্রি ধান৮৯ ও ব্রি ধান৯২ এবং বঙ্গবন্ধু ধান১০০ আমার ধারণা বদলে দিয়েছে। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আর বিদেশ নয় আমি দেশেই কৃষি কাজ করবো। নতুন জাতের ধান চাষ করবো। চাষাবাদ এখন আগের তুলনায় বেশি লাভজনক।

কালীগঞ্জের বালোয়াবিটা গ্রামের কৃষক আমানুল্লাহ বলেন, ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। আমার জীবনে আমি এতো ফলন দেখিনাই। কীটনাশক ও সারও কম লাগে। খেতে পানিও কম লাগে। এককথায় ফলনে আমরা সবাই  খুশি। 

ব্রি মহাপরিচালক ড. মো. শাহজাহান কবীর বলেন, প্রতি বছর আমাদের জনসংখ্যার সঙ্গে ২০-২২ লাখ লোক যোগ হচ্ছে। বাড়তি এসব জনসংখ্যার খাবারের নিশ্চয়তা দিতে হলে অবশ্যই ব্রি উদ্ভাবিত নতুন জাতের ধানগুলো চাষ করতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। কেননা এটার উৎপাদন খরচ কম, চাল ভালো, উৎপাদন বেশি। 

রাইস ফার্মিং সিস্টেম বিভাগের প্রধান ড. মো. ইব্রাহীমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কৃষক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটে পরিচালক প্রশাসন ড. মো. আব্দুল লতিফ, ব্রি বিজ্ঞানী সমিতির সভাপতি ড. আমিনা খাতুন ও কালীগঞ্জ উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা ফারজানা তাসলিম, ব্রির রাইস ফার্মিং সিস্টেম বিভাগের সিনিয়র বিজ্ঞানী ড. খায়রুল কায়েস, এবিএম জামিউল ইসলাম ও জাহাঙ্গীর সিরাজী প্রমুখ।

- Advertisement -
- Advertisement -

More articles

- Advertisement -

Latest article