বৃহস্পতিবার, জুন 20, 2024

২৯ ফেব্রুয়ারি, লিপ ইয়ার নিয়ে এইসব অজানা তথ্যগুলি কি আপনি জানতেন

Must read

- Advertisement -
২৯ ফেব্রুয়ারি, লিপ ইয়ার নিয়ে এইসব অজানা তথ্যগুলি কি আপনি জানতেন | প্রত্যেক চার বছর অন্তর ফেব্রুয়ারি মাসের একটি করে অতিরিক্ত দিন থাকে। আর সেটি হল ২৯ ফেব্রুয়ারি। লিপ ইয়ার-এর নেপথ্যে একটি ভৌগোলিক ব্যাখ্যা রয়েছে। যেখানে বলা হয়েছে, সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে পৃথিবীর সময় লাগে ৩৬৫ দিন ৫ ঘণ্টা ৪৮ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড। কিন্তু আমরা যা অনুসরণ করি সেই গ্রেগোরিয়ান ক্যালেন্ডারে মোট ৩৬৫ দিন রয়েছে। তাই এই অতিরিক্ত ৫ ঘণ্টা ৪৮ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড যদি চার বছর অন্তর একটি দিন হিসাবে ক্যালেন্ডারের সবচেয়ে ছোট মাসে যোগ করা না হত, তাহলে ১০০ বছর পর ক্যালেন্ডারে ২৪ দিন কম পড়ত। 

প্রত্যেক চার বছর অন্তর ফেব্রুয়ারি মাসের একটি করে অতিরিক্ত দিন থাকে। আর সেটি হল ২৯ ফেব্রুয়ারি। লিপ ইয়ার-এর নেপথ্যে একটি ভৌগোলিক ব্যাখ্যা রয়েছে। যেখানে বলা হয়েছে, সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে পৃথিবীর সময় লাগে ৩৬৫ দিন ৫ ঘণ্টা ৪৮ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড। কিন্তু আমরা যা অনুসরণ করি সেই গ্রেগোরিয়ান ক্যালেন্ডারে মোট ৩৬৫ দিন রয়েছে। তাই এই অতিরিক্ত ৫ ঘণ্টা ৪৮ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড যদি চার বছর অন্তর একটি দিন হিসাবে ক্যালেন্ডারের সবচেয়ে ছোট মাসে যোগ করা না হত, তাহলে ১০০ বছর পর ক্যালেন্ডারে ২৪ দিন কম পড়ত। 

এতো গেল ভৌগোলিক ব্যাখ্যা, কিন্তু জানেন কি এছাড়াও সারা বিস্ব জুড়ে ২৯ ফেব্রুয়ারি নিয়ে নানা কাহিনি প্রচলিত রয়েছে। জেনে নিন সেগুলি-  

১) বহু প্রাচীন ঐতিহ্য অনুসারে ২৯ ফেব্রুয়ারি কোনও মহিলা তাঁর পছন্দের পুরুষকে প্রেম নিবেদন করতে পারেন৷ প্রাচীনকালের যখন সন্ত ব্রিজেট সন্ত প্যেট্রিকের কাছে নালিশ জানান যে, মহিলাদের প্রেম নিবেদন করার জন্যে অনেক দিন ধরে অপেক্ষা করতে হয়। তখন সন্ত প্যেট্রিক ২৯ ফেব্রুয়ারি দিনটি প্রেম নিবেদনের জন্যে ধার্য করেন৷

২) এই দিনেএমন নিয়মও রয়েছে যেখানে বলা হয়েছে যে, এই বিশেষ দিনে কোনও পুরুষ যদি কোনও মহিলার প্রেমের প্রস্তাবে না সম্মতি দেন, তাহলে জরিমানা হিসাবে একটি চুমু, একটি সিল্কের পোশাক, অথবা ১২টি গ্লাভস উপহার দেওয়ার প্রচলন রয়েছে। 

৩) যেসব মানুষ ২৯ ফেব্রুয়ারি লিপ ইয়ারের দিন জন্মগ্রহণ করেন তাঁদের লিপলিংস (leaplings) বা লিপার্স(leapers) বলা হয়ে থাকে। 

৪) অনর সোসাইটি অব লিপ ইয়ার বেবিজ় নামে একটি ক্লাব রয়েছে। ২৯ ফেব্রুয়ারি লিপ ইয়ারের দিন যাঁদের জন্ম হয় তাঁরা এই ক্লাবের সদস্য। সারা বিশ্বজুড়ে প্রায় ১০,০০০ মানুষ এই ক্লাবের সদস্য। 

৫) জ্যোতিষরা বিশ্বাস করেন ২৯ ফেব্রুয়ারি যাঁরা জন্ম নেন তাঁরা বিশেষ ক্ষমতার অধিকারী হয়ে থাকেন। 

৬) তাইওয়ানে বিবাহিত মেয়েরা ঐতিহ্য মেনে লিপ মাসে ঘরে ফিরে আসেন। কারণ বিশ্বাস করা হয় যে, চন্দ্র মাসটি পিতামাতার খারাপ স্বাস্থ্যের কারণ হতে পারে। তাই মেয়েদের তাঁর বাবা-মায়ের সুস্বাস্থ্য কামনার্থে নুড্যলস আনারও প্রচলন রয়েছে।

৭) তাসমানিয়ার প্রিমিয়ার স্যার জেমস উইলসন (১৮১২-১৮৮০) বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য এক ব্যক্তি যাঁর জন্ম ও মৃত্যুদিন দুই-ই ২৯ ফেব্রুয়ারি।

৮) লিপ ইয়ারে যদি কারওর জন্ম হয় তাহলে হংকং-এ অন্যান্য বছরে সেই ব্যক্তির জন্মদিন ধরা হয় ১ মার্চ। পাশাপাশি নিউজিল্যান্ডে সেই ব্যক্তির জন্মদিন ধরা হয় ২৮ ফেব্রুয়ারি। মজার কথা হল এটাই যে, আপনি লিপ ইয়ারের আগে অর্থাৎ ২৮ ফেব্রুয়ারি যদি নিউজিল্যান্ড যান এবং সেখান থেকে যদি হংকং সফরে যান তাহলে আপনি হিসাব মতো তিনদিন ধরে আপনার জন্মদিন পালন করতে পারবেন। কি, মজাদার না ব্যপারটা?

- Advertisement -
- Advertisement -

More articles

- Advertisement -

Latest article