রবিবার, জুন 16, 2024

সাতক্ষীরায় ১৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে শেখ কামাল ল্যাব হবে: পলক

Must read

- Advertisement -
সাতক্ষীরায় ১৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে শেখ কামাল ল্যাব হবে: পলক | ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেছেন, সাতক্ষীরায় খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে তরুণ-তরুণীদের জন্য ১৩০ কোটি টাকা ব্যয়ের শেখ কামাল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব তৈরি হবে। সেখান থেকে প্রতি বছর ২ হাজার শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেছেন, সাতক্ষীরায় খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে তরুণ-তরুণীদের জন্য ১৩০ কোটি টাকা ব্যয়ের শেখ কামাল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব তৈরি হবে। সেখান থেকে প্রতি বছর ২ হাজার শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

শুক্রবার সকালে সাতক্ষীরা শিল্পকলা একাডেমিতে ‘হার পাওয়ার প্রকল্প প্রযুক্তির সহায়তায় নারীর ক্ষমতায়ন’ শীর্ষক একটি প্রকল্পের আওতায় নারীদের ল্যাপটপ বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘সাতক্ষীরার ৭ উপজেলায় কম্পিউটারে ল্যাব হবে। সেখান থেকে প্রতি বছর ২৫ হাজার নারী উদ্যোক্তা তৈরি হবে। আগামী ছয় মাসের মধ্যে সাতক্ষীরার স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও ভূমি অফিসে হাই স্পিড ইন্টারনেট সেবা দেওয়া হবে। খুব শীঘ্রই দেশের মানুষ অল্প মূল্যে হাই স্পিড ইন্টারনেট সেবা পাবে। পাশাপাশি স্মার্ট বাংলাদেশে স্মার্ট পোস্ট অফিসে স্মার্ট সার্ভিস পয়েন্ট করা হবে। নারীরা সমাজে যেন পিছিয়ে না পড়ে সেজন্য প্রধানমন্ত্রী এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘কেউ বিশ্বাস করেনি মাত্র ১৩ বছরে বাংলাদেশ ডিজিটাল হবে। সাতক্ষীরায় বসে রপ্তানি আয় করা সম্ভব সেটা নারীরা প্রমাণ করেছে। জেলার ৭৮টি ইউনিয়নে ডিজিটাল সেন্টার একজন পুরুষের পাশাপাশি নারী সেবা দিয়ে আসছে। বর্তমানে দেশের প্রতিটা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অর্ধেক নারী দেখতে পাবেন।’

তিনি বলেন,আমার জন্ম নাটরের সিংড়া উপজেলার ছোট একটি গ্রামে । আমি ছেলে বেলায় দেখেছি কোন পরিবারে কন্যা সন্তান জন্ম নিলে তারাপরিবারে বোঝা বলে মনে করত। ২০০৮ সালে দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষনা দিয়েছিলেন,এইচ এস সি পাশের পর একজন তরুনীর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হতে পারবে। এছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নারী কোটা থাকবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার একটা সিদ্ধান্ত বদলে দিয়েছে সামাজিক পেক্ষাপট।নারীরা বর্তমানে পরিবারের একটি সম্পদ হল পরিবারে। যৌতুকের অভিশাপ থেকে নারীদের বিরত রাখতে প্রধানমন্ত্রী সামাজিক ভাবে উদ্যোগ নিয়েছেন।তার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ আজ স্মার্ট বাংলাদেশে রুপান্তিত হতে চলেছে। শুক্রবার(২৩ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন ও তথ্য যোগাযোগ অধিদপ্তরের আয়োজনে শিল্পকলা একাডেমিতে ল্যাপটপ বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কথাগুলো বলেন বাংলাদেশ ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, ‘হার পাওয়ার’ প্রকল্পের উপ-পরিচালক নিলুফা ইয়াসমিন। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ হুমায়ন কবিরের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সাতক্ষীরা-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আফম রুহুল হক, সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য আশরাফুজ্জামান আশু, সাতক্ষীরা -১ আসনের সংসদ সদস্য ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য লায়লা পারভীন সেজুতি, জেলা পুলিশ সুপার মতিউর রহমান সিদ্দিকী, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ কে এম ফজলুল হক, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, তালা উপজেলার ‘হার পাওয়ার’ প্রকল্পের প্রশিক্ষনরত শিক্ষার্থী টুম্পা খাতুন, সদর উপজেলার নাজমিন নাহার তাসমিন, কলারোয়ার চম্পক লতা প্রমূখ।

এসময় জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তা সহ জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ এবং হারপাওয়ার প্রকল্পের প্রশিক্ষণ রত শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে প্রশিক্ষনরত ২৪০জন শিক্ষার্থীদের মাঝে ল্যাপটপ বিতরন করা হয়। এছাড়া ফাইটার বিমার তৈরির জন্য তালার বোরহান উদ্দীন নামে কে ল্যাপটপ উপহার দেওয়া হয়। একই সাথে তার এই প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে আবিষ্কার উদ্ভাবন করার জন্য সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন প্রতিমন্ত্রী।

- Advertisement -
- Advertisement -

More articles

- Advertisement -

Latest article