শনিবার, জুন 15, 2024

সকলের জন্য সুপেয় পানি নিশ্চিতে এনজিওদের সাথে একযোগে কাজ করবে সরকার : পরিবেশমন্ত্রী

Must read

- Advertisement -
সকলের জন্য সুপেয় পানি নিশ্চিতে এনজিওদের সাথে একযোগে কাজ করবে সরকার : পরিবেশমন্ত্রী | পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী বলেছেন, পানি সম্পদ রক্ষা এবং সকলের জন্য পানির অধিকার নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট এনজিওদের সাথে একসাথে কাজ করবে সরকার। তিনি বলেন, সরকারি, বেসরকারি সংস্থা সমূহ একসঙ্গে কাজ করে আমরা পানির সংকট কাটিয়ে উঠতে এবং টেকসই ভবিষ্যত গড়ে তুলতে সক্ষম হবো। সকলের জন্য পানি নিশ্চিতে এবং সুরক্ষিত বিশ্বের জন্য আমাদের সকলকেই কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে হবে।আজ গুলশানের সিক্স সিজন হোটেলে অ্যাকশনএইড আয়োজিত ৯ম আন্তর্জাতিক পানি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিবেশমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এবার সম্মেলনের প্রতিপাদ্য হচ্ছে-‘ওয়াটার, রিভারস, এন্ড ক্লাইমেট চেইঞ্জ: ক্রিয়েটিং স্পেস ফর রেজিলেন্স।’পরিবেশমন্ত্রী বলেন, সুপেয় পানির সংকট একটি বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ, কিন্তু এটি স্থানীয়ভাবে সমাধান করতে হবে। সরকার এজন্য পাইলট প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। সমাজের সকল শ্রেণির ব্যক্তিদের একসাথে কাজ করে প্রত্যেকের বেঁচে থাকার এবং উন্নতির জন্য প্রয়োজনীয় পানি পেতে পারে তা নিশ্চিত করতে হবে। আমাদের তরুণদের নদী রক্ষা ও পানির অধিকার নিশ্চিতে এগিয়ে আসতে হবে।পানি সম্মেলনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে অস্ট্রেলিয়ার ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার নারদিয়া সিম্পসন, অ্যাকশনএইড ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ সোসাইটির চেয়ারপারসন ইব্রাহিম খলিল আল-জায়াদ এবং অ্যাকশনএইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কবির প্রমুখ বক্তব্য রাখেন । ‘জলবায়ু পরিবর্তনের রাজনীতির মোকাবিলা’ শীর্ষক মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. ইমতিয়াজ আহমেদ।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী বলেছেন, পানি সম্পদ রক্ষা এবং সকলের জন্য পানির অধিকার নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট এনজিওদের সাথে একসাথে কাজ করবে সরকার। 
তিনি বলেন, সরকারি, বেসরকারি সংস্থা সমূহ একসঙ্গে কাজ করে আমরা পানির সংকট কাটিয়ে উঠতে এবং টেকসই ভবিষ্যত গড়ে তুলতে সক্ষম হবো। সকলের জন্য পানি নিশ্চিতে এবং সুরক্ষিত বিশ্বের জন্য আমাদের সকলকেই কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে হবে।
আজ গুলশানের সিক্স সিজন হোটেলে অ্যাকশনএইড আয়োজিত ৯ম আন্তর্জাতিক পানি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিবেশমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এবার সম্মেলনের প্রতিপাদ্য হচ্ছে-‘ওয়াটার, রিভারস, এন্ড ক্লাইমেট চেইঞ্জ: ক্রিয়েটিং স্পেস ফর রেজিলেন্স।’
পরিবেশমন্ত্রী বলেন, সুপেয় পানির সংকট একটি বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ, কিন্তু এটি স্থানীয়ভাবে সমাধান করতে হবে। সরকার এজন্য পাইলট প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। সমাজের সকল শ্রেণির ব্যক্তিদের একসাথে কাজ করে প্রত্যেকের বেঁচে থাকার এবং উন্নতির জন্য প্রয়োজনীয় পানি পেতে পারে তা নিশ্চিত করতে হবে। আমাদের তরুণদের নদী রক্ষা ও পানির অধিকার নিশ্চিতে এগিয়ে আসতে হবে।
পানি সম্মেলনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে অস্ট্রেলিয়ার ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার নারদিয়া সিম্পসন, অ্যাকশনএইড ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ সোসাইটির চেয়ারপারসন ইব্রাহিম খলিল আল-জায়াদ এবং অ্যাকশনএইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কবির প্রমুখ বক্তব্য রাখেন । ‘জলবায়ু পরিবর্তনের রাজনীতির মোকাবিলা’ শীর্ষক মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. ইমতিয়াজ আহমেদ।

- Advertisement -
- Advertisement -

More articles

- Advertisement -

Latest article