মঙ্গলবার, জুন 18, 2024

মৃত্যুর ৫ বছর পর মুক্তি পাচ্ছে সুবীর নন্দীর নতুন গান

Must read

- Advertisement -
মৃত্যুর ৫ বছর পর মুক্তি পাচ্ছে সুবীর নন্দীর নতুন গান | 'গেছ ঘুম নিঝুম নিরালায়, জেগে আছি দুচোখ জানালায়..' এমন কথায় সুর ও সঙ্গীত করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত সঙ্গীত পরিচালক তানভীর তারেক। গানটি লিখেছেন দর্শকনন্দিত গীতিকার সোমেশ্বর অলি।কিংবদন্তী কন্ঠশিল্পী সুবীর নন্দীর আনরিলিজ ট্র্যাক 'ঘুম' মুক্তি পাবে চলতি সপ্তাহে।
সুবীর নন্দীর গানটির সুর ও সঙ্গীত করেছেন তানভীর তারেক, গানটি লিখেছেন সোমেশ্বর অলি

‘গেছ ঘুম নিঝুম নিরালায়, জেগে আছি দুচোখ জানালায়..’ এমন কথায় সুর ও সঙ্গীত করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত সঙ্গীত পরিচালক তানভীর তারেক। গানটি লিখেছেন দর্শকনন্দিত গীতিকার সোমেশ্বর অলি।কিংবদন্তী কন্ঠশিল্পী সুবীর নন্দীর আনরিলিজ ট্র্যাক ‘ঘুম’ মুক্তি পাবে চলতি সপ্তাহে।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে সুবীর নন্দীর কিছু গান নিয়ে কাজ করছিলেন তানভীর তারেক। গানগুলো মুক্তির আগেই প্রয়াত হন বরেণ্য এই শিল্পী।

সুরকার সংগীত পরিচালক তানভীর তারেক বলেন, ‘সুবীর’দা আমার সঙ্গীত জীবনের অনেক বড় একটা অনুপ্রেরণার নাম। আমার সঙ্গীতের যে কোনো বিষয়ে তিনি আমাকে বরাবরই সাহস জুগিয়েছেন। একদিন এক আড্ডায় আমাকে তিনি বলেন, তানভীর তোমরা এ সময়ের সুরকার। আমার জন্য কিছু গান বাঁধো। এই গানটি হবে আমার সেই প্রজেক্টের দ্বিতীয় রিলিজ। বাকি ৮টি গান ধারাবাহিকভাবে মুক্তি দেওয়া হবে।’

গীতিকার সোমেশ্বর অলি বলেন, ‘তানভীর ভাইকে অনেক আগে দুটি গান দিয়েছিলাম। তার ভেতরে এই গানটি তিনি কবে কখন সুর করে সুবীর দাকে দিয়ে গাইয়ে রেখেছেন সত্যিই জানি না। আমি শুনে অবাক। আমার জন্য এটা সারপ্রাইজ ছিল!’

গানটি ‘সাউন্ডস অব তানভীর’ এর অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেল ও স্বাধীন মিউজিক অ্যাপ এ মুক্তি পাবে। গ্লোবালি স্পটিফাই, আইটিউনসসহ বাকি সব প্লাটফর্মেও গানটি পাওয়া যাবে।উল্লেখ্য, একুশে পদক ও পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী সুবীর নন্দীর জন্ম ১৯৫৩ সালের ১৯ নভেম্বর। তিনি বাংলা চলচ্চিত্র ও অডিও গানে অসামান্য অধ্যায়ের অধিপতি। তার গাওয়া কালজয়ী গানের মধ্যে রয়েছে ‘আমার এ দুটি চোখ পাথর তো নয়’, ‘পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই’, ‘আমি বৃষ্টির কাছ থেকে কাঁদতে শিখেছি’, ‘তুমি এমনই জাল পেতেছ’, ‘বন্ধু হতে চেয়ে তোমার’, ‘কতো যে তোমাকে বেসেছি ভালো’, ‘একটা ছিল সোনার কন্যা’, ‘ও আমার উড়াল পঙ্খীরে’ ইত্যাদি।

- Advertisement -
- Advertisement -

More articles

- Advertisement -

Latest article