মঙ্গলবার, জুন 18, 2024

বিশ্বের ১৫৭ দেশে রপ্তানি হয় বাংলাদেশের ওষুধ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Must read

- Advertisement -
বিশ্বের ১৫৭ দেশে রপ্তানি হয় বাংলাদেশের ওষুধ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী | বিশ্বের ১৫৭টি দেশে বাংলাদেশে উৎপাদিত ওষুধ রপ্তানি করা হয় বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে ঢাকা-১৯ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য সাইফুল ইসলামের করা প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

বিশ্বের ১৫৭টি দেশে বাংলাদেশে উৎপাদিত ওষুধ রপ্তানি করা হয় বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে ঢাকা-১৯ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য সাইফুল ইসলামের করা প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ ওষুধশিল্পে উত্তরোত্তর উন্নতি করেছে। দেশের মোট চাহিদার ৯৮ শতাংশ ওষুধ এখন দেশেই উৎপাদিত হয়। বাংলাদেশে উৎপাদিত প্রায় সব ওষুধই রপ্তানি হচ্ছে। দেশে উৎপাদিত ওষুধ বিদেশে রপ্তানিতে উৎসাহিত করতে সরকারিভাবে প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে চলতি বছর ১০ শতাংশ হারে প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে।’

লক্ষ্মীপুর-১ আসনের সরকারদলীয় সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন খানের করা এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, চলতি অর্থবছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত ৬ মাসে প্রায় ৫ হাজার ৯০০ কোটি ৫৪ লাখ ৫৬ হাজার ৯০৩ টাকার ওষুধ রপ্তানি করা হয়েছে।

স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মো. আবদুল্লাহর প্রশ্নের জবাবে সামন্ত লাল সেন বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকে প্রায় ৩২ প্রকারের ওষুধ ও সরকারি হাসপাতালে ১০৫ প্রকারের ওষুধ বিনা মূল্য সরবরাহ করা হচ্ছে।

চট্টগ্রাম-১১ আসনের সংসদ সদস্য এম আবদুল লতিফের করা প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ২০২৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে চলতি বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১ হাজার ৭২১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তিনি বলেন, ঢাকা শহরে এডিস মশার প্রাক্‌-মৌসুম, মৌসুম ও মৌসুম–পরবর্তী জরিপ চলমান রয়েছে। জরিপের ফল সংশ্লিষ্ট সব সিটি করপোরেশনকে অবহিত করা হচ্ছে। এ ছাড়া ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুই মাস পরপর এডিস মশার জরিপ কার্যক্রম সম্পন্ন করা হচ্ছে।

- Advertisement -
- Advertisement -

More articles

- Advertisement -

Latest article