শনিবার, জুন 22, 2024

ডায়ানা লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশের ২ তরুণ

Must read

- Advertisement -

শতাধিক সমাজসেবী সংগঠনের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত ছিলেন ব্রিটিশ যুবরাজ চার্লসের সাবেক স্ত্রী প্রিন্সেস ডায়ানা। তাঁর স্মরণে সমাজসেবায় যুক্ত তরুণদের দেওয়া হয় ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড। এ বছর সারা বিশ্বের ২০ উদ্যোগী তরুণকে দেওয়া হয়েছে ডায়ানা লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড। তাঁদের মধ্যে আছেন বাংলাদেশের দুজন—অলাভজনক সংগঠন অ্যামপ্লিটিউডের প্রতিষ্ঠাতা নাফিরা নাঈম আহমাদ এবং জলবায়ু ও পরিবেশবিষয়ক সংগঠন ইকো-নেটওয়ার্ক গ্লোবালের প্রতিষ্ঠাতা শামীম আহমেদ মৃধা। ১৪ মার্চ লন্ডনের বিজ্ঞান জাদুঘরে তাঁদের হাতে পুরস্কার তুলে দিয়েছেন ডায়নাপুত্র প্রিন্স উইলিয়াম।

ডায়ানা লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশের ২ তরুণ | শতাধিক সমাজসেবী সংগঠনের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত ছিলেন ব্রিটিশ যুবরাজ চার্লসের সাবেক স্ত্রী প্রিন্সেস ডায়ানা। তাঁর স্মরণে সমাজসেবায় যুক্ত তরুণদের দেওয়া হয় ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড। এ বছর সারা বিশ্বের ২০ উদ্যোগী তরুণকে দেওয়া হয়েছে ডায়ানা লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড। তাঁদের মধ্যে আছেন বাংলাদেশের দুজন—অলাভজনক সংগঠন অ্যামপ্লিটিউডের প্রতিষ্ঠাতা নাফিরা নাঈম আহমাদ এবং জলবায়ু ও পরিবেশবিষয়ক সংগঠন ইকো-নেটওয়ার্ক গ্লোবালের প্রতিষ্ঠাতা শামীম আহমেদ মৃধা। ১৪ মার্চ লন্ডনের বিজ্ঞান জাদুঘরে তাঁদের হাতে পুরস্কার তুলে দিয়েছেন ডায়নাপুত্র প্রিন্স উইলিয়াম।

দ্য লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড মূলত প্রশংসনীয় সামাজিক কর্ম বা মানবিক কাজের জন্য দেওয়া হয়। দ্য ডায়ানা অ্যাওয়ার্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, নাইজেরিয়া, ভারত, বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, রোমানিয়া, জ্যামাইকা, কেম্যান দ্বীপপুঞ্জ ও অস্ট্রেলিয়া থেকে তরুণ-তরুণীরা এ বছর অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন।
তারা সমাজে অবদান রেখেছেন। তাদের মধ্যে অনেকেই প্রিন্সেস ডায়ানাকে কেবল ‘ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্ব’ হিসাবে জানেন।
ডায়না অ্যাওয়ার্ডের প্রধান নির্বাহী ড. টেসি ওজো সিবিই বলেন, বিশ্বকে পরিবর্তন করার ক্ষমতা রয়েছে তরুণদের। সাহস, নিঃস্বার্থতা এবং দৃঢ় সংকল্পের মাধ্যমে তারা প্রচণ্ড প্রতিকূলতার সম্মুখীন হয়ে পরিবর্তন আনছেন। আজ এবং আগামী বছরগুলোতে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে তরুণদের সহানুভূতি ও দৃঢ়তার গুরুত্ব অপরিসীম।
সংশ্লিষ্টদের ভাষ্য, একটি স্বাধীন বিচারক প্যানেল ২০ জনকে অ্যাওয়ার্ড দেওয়ার জন্য বেছে নিয়েছে। ব্যতিক্রমী ব্যক্তিদের একটি দল থেকে মাত্র ২০ জনকে বেছে নেওয়ার কাজটি কঠিন ছিল।
বাংলাদেশি যে দুইজন পেলেন ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড:
‘যখন আমার জীবনের একমাত্র সমস্যা হলো হোমওয়ার্ক শেষ করা, তখন আমার বয়সেরই কেউ হয়তো এক বেলা খাবারের জন্য ইট ভাঙছে,’ এভাবেই নিজের কাজের অনুপ্রেরণার কথা ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড কর্তৃপক্ষের কাছে তুলে ধরেছেন নাফিরা নাঈম আহমাদ। সমাজের এসব বৈষম্য দূর করতেই নাফিরা গড়েছেন অলাভজনক সংগঠন অ্যামপ্লিটিউড। এই সংগঠনে ৩০ জনের বেশি স্বেচ্ছাসেবী আছেন। সমতা প্রতিষ্ঠা, বৈষম্যের বিরুদ্ধে লড়াই, ন্যায্য ও ন্যায়সংগত সমাজ গঠনসহ বেশ কিছু লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে নাফিরার সংগঠন।

ডায়ানা লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশের ২ তরুণ | শতাধিক সমাজসেবী সংগঠনের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত ছিলেন ব্রিটিশ যুবরাজ চার্লসের সাবেক স্ত্রী প্রিন্সেস ডায়ানা। তাঁর স্মরণে সমাজসেবায় যুক্ত তরুণদের দেওয়া হয় ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড। এ বছর সারা বিশ্বের ২০ উদ্যোগী তরুণকে দেওয়া হয়েছে ডায়ানা লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড। তাঁদের মধ্যে আছেন বাংলাদেশের দুজন—অলাভজনক সংগঠন অ্যামপ্লিটিউডের প্রতিষ্ঠাতা নাফিরা নাঈম আহমাদ এবং জলবায়ু ও পরিবেশবিষয়ক সংগঠন ইকো-নেটওয়ার্ক গ্লোবালের প্রতিষ্ঠাতা শামীম আহমেদ মৃধা। ১৪ মার্চ লন্ডনের বিজ্ঞান জাদুঘরে তাঁদের হাতে পুরস্কার তুলে দিয়েছেন ডায়নাপুত্র প্রিন্স উইলিয়াম।
নাফিরা নাঈম আহমাদ


প্রান্তিক মানুষের জন্য কাজ করা এই উদ্যমী তরুণ বলেন, ‘লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড পাওয়াটা আমার কাছে অবিশ্বাস্য ছিল। কারণ, ২০২২ সালে যখন ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড পাই, তখন আমার বয়স মাত্র ১৮। ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড পাব, প্রত্যাশা করিনি।তবে লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড পাওয়ার একটা শখ ছিল। আমাকে ডায়ানার লিগ্যাসি হিসেবে চিন্তা করা হচ্ছে, এটা একটা অসাধারণ অনুভূতি। এই অ্যাওয়ার্ড আমাকে প্রেরণা জোগাবে এগিয়ে যাওয়ার জন্য। মনে হচ্ছে দায়িত্ব অনেক বেড়ে গেল।’
সংস্থাটি টেকসই সমাধান দেওয়ার মাধ্যমে বৈষম্য দূর করার চেষ্টা করে। নানা প্রতিকূলতা মোকাবিলা করেও নাফিরা সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে গেছেন। তিনি প্রান্তিক মানুষদের সাহায্য করার জন্য ৩০টির বেশি দাতব্য ইভেন্টের নেতৃত্ব দিয়েছেন, যার মধ্যে একটি শিল্প প্রদর্শনী রয়েছে এতিমদের জন্য।

ডায়ানা লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশের ২ তরুণ | শতাধিক সমাজসেবী সংগঠনের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত ছিলেন ব্রিটিশ যুবরাজ চার্লসের সাবেক স্ত্রী প্রিন্সেস ডায়ানা। তাঁর স্মরণে সমাজসেবায় যুক্ত তরুণদের দেওয়া হয় ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড। এ বছর সারা বিশ্বের ২০ উদ্যোগী তরুণকে দেওয়া হয়েছে ডায়ানা লিগ্যাসি অ্যাওয়ার্ড। তাঁদের মধ্যে আছেন বাংলাদেশের দুজন—অলাভজনক সংগঠন অ্যামপ্লিটিউডের প্রতিষ্ঠাতা নাফিরা নাঈম আহমাদ এবং জলবায়ু ও পরিবেশবিষয়ক সংগঠন ইকো-নেটওয়ার্ক গ্লোবালের প্রতিষ্ঠাতা শামীম আহমেদ মৃধা। ১৪ মার্চ লন্ডনের বিজ্ঞান জাদুঘরে তাঁদের হাতে পুরস্কার তুলে দিয়েছেন ডায়নাপুত্র প্রিন্স উইলিয়াম।
শামীম আহমেদ মৃধা


শামীম আহমেদ মৃধা  বয়স ২৬। ডায়ানা অ্যাওয়ার্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, শামীম ইকো-নেটওয়ার্ক গ্লোবালের প্রতিষ্ঠাতা। একাধিক দেশের বৃহত্তম যুব গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে একটি, যার লক্ষ্য প্রশিক্ষণ কর্মসূচি এবং সচেতনতা প্রচারের মাধ্যমে যথাযথ জলবায়ু শিক্ষা নিশ্চিত করা। প্রকল্পটি অনলাইন এবং অফলাইন উভয় ক্ষেত্রেই ৫০ হাজারের বেশি তরুণকে জলবায়ু শিক্ষা প্রদান করেছে এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০তম বার্ষিকী স্মরণে ২০৩০ সালের মধ্যে ৫০ হাজার গাছ লাগানোর লক্ষ্য নিয়েছে।
ওকালতির পাশাপাশি শামীম মানুষকে জলবায়ু বিপর্যয় মোকাবিলায় সক্ষমতা তৈরিতে সহায়তা করেন। ঘূর্ণিঝড় ও বন্যায় বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকার ঝুঁকির কারণে তিনি একটি তহবিল সংগ্রহ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলেন, যা ৩৫০টি উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ পরিবারকে উপকৃত করেছিল।

- Advertisement -
- Advertisement -

More articles

- Advertisement -

Latest article