রবিবার, জুন 16, 2024

অক্টোবরে চালু হচ্ছে শাহজালালের তৃতীয় টার্মিনাল

Must read

- Advertisement -
অক্টোবরে চালু হচ্ছে শাহজালালের তৃতীয় টার্মিনাল | গত বছরের অক্টোবরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল উদ্বোধন করা হয়। টার্মিনাল উদ্বোধন হলেও শুরু হয়নি এর কার্যক্রম। এবার সেই অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে। চলতি বছরের অক্টোবর মাসেই টার্মিনাল চালু হবে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী ফারুক খান।

গত বছরের অক্টোবরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল উদ্বোধন করা হয়। টার্মিনাল উদ্বোধন হলেও শুরু হয়নি এর কার্যক্রম। এবার সেই অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে। চলতি বছরের অক্টোবর মাসেই টার্মিনাল চালু হবে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী ফারুক খান।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরামের নির্বাহী কমিটির সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ কথা জানান।মন্ত্রী বলেন, দেশের সব বিমানবন্দর আধুনিকায়ন করার কাজ চলমান। এবছরই অক্টোবর মাসে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অত্যাধুনিক থার্ড টার্মিনাল চালু হবে। নতুন রাডার স্থাপন করা হয়েছে। ফলে দেশের সমগ্র আকাশসীমা নজরদারির আওতায় আসায় আমাদের আকাশসীমা দিয়ে চলাচলকারী প্লেন থেকে রাজস্ব আহরণ বেড়েছে।

অক্টোবরে চালু হচ্ছে শাহজালালের তৃতীয় টার্মিনাল | গত বছরের অক্টোবরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল উদ্বোধন করা হয়। টার্মিনাল উদ্বোধন হলেও শুরু হয়নি এর কার্যক্রম। এবার সেই অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে। চলতি বছরের অক্টোবর মাসেই টার্মিনাল চালু হবে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী ফারুক খান।

তিনি আরও বলেন, শীতকালে প্রায়ই কুয়াশার কারণে ফ্লাইট ডাইভারশন করতে হয়। এই ডাইভারশন যাতে করতে না হয়, তার জন্য আইএলএস সিস্টেম আপগ্রেড করা হচ্ছে। এছাড়া মন্ত্রণালয় এরই মধ্যে নির্দেশনা দিয়েছে যে, কোনো ফ্লাইট ডাইভারশনের প্রয়োজন হলেও তা যেন দেশের ভিতরেই করা হয়। এজন্য শীতকালের ওই সময়ে সিলেট এবং চট্টগ্রাম এয়ারপোর্ট ২৪ ঘণ্টা অপারেটিং থাকবে।

দেশের পর্যটন শিল্পের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, এরই মধ্যে দেশীয় পর্যটকের সংখ্যা অনেক বেড়েছে। এখন আমরা বিদেশি পর্যটক বাড়ানোর জন্য কাজ করছি। দেশের পর্যটনের পরিকল্পিত উন্নয়নের জন্য পর্যটন মহাপরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে। পর্যটন শিল্পে বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার চেষ্টা চলছে। পুরাতন হয়ে যাওয়া বিভিন্ন পর্যটন স্থাপনা সংস্কার এবং এর কলেবর বৃদ্ধির জন্য দেশি-বিদেশি যৌথ বিনিয়োগের বিষয়ে আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি।

বৈঠকে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন, যুগ্ম সচিব মো. সাঈদ কুতুব, অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরামের সভাপতি তানজিম আনোয়ার, সাধারণ সম্পাদক বাতেন বিপ্লবসহ নির্বাহী কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

- Advertisement -
- Advertisement -

More articles

- Advertisement -

Latest article